28 C
dhaka
সোমবার, ১৪ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৩১শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | রাত ৩:০৬
দৈনিক পরিবর্তন সংবাদ

“বঙ্গবন্ধু মডেল গ্রাম” প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ বাস্তবায়নে আরো যত্নবান হতে হবে- প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য

 

নিজস্ব প্রতিবেধকঃ

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য এম.পি বলেছেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা সমবায় দিবসের ভাষণে বঙ্গবন্ধুর গণমুখী সমবায় ভাবনার আলোকে “বঙ্গবন্ধু মডেল গ্রাম” প্রতিষ্ঠার বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেছেন। এই প্রকল্প বাস্তবায়নে আমাদের আরো যত্নবান হতে হবে। প্রতিটি গ্রামে আধুনিক নগর সুবিধা সম্প্রসারণে দেশের মোট ১০টি গ্রামে পাইলট প্রকল্প হিসেবে গ্রহন করা হয়েছে। পাইলট প্রকল্পটি সফল হলে পর্যায়ক্রমে সারা দেশে সম্প্রসারণ করা হবে। তাই অত্যন্ত গুরুত্বসহকারে ও চমৎকারভাবে বাস্তবায়নের জন্য আমাদের একসাথে কাজ করতে হবে।
আজ বুধবার আগারগাঁও এর সমবায় অধিদপ্তরের সম্মেলনকক্ষে আয়োজিত ৪৯তম জাতীয় সমবায় দিবসে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ভাষণে প্রদত্ত নির্দেশনার আলোকে পরিকল্পনা গ্রহন বিষয়ক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য এম.পি এসব কথা বলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরও বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জাতীয় সমবায় দিবসে সমবায়ে নারীদের অধিকহারে অংশগ্রহণের কথা বলেছেন। তাঁর নির্দেশনার আলোকে মহিলাদের সম্পৃক্ততা বাড়াতে হবে । বর্তমানে দেশের ২৩% সমবায়ী হচ্ছেন মহিলা যাদের মাধ্যমে নারী আর্থসামাজিক উন্নয়ন ঘটার পাশাপাশি নারীর ক্ষমতায়ন ঘটছে। তাদের স্বনির্ভর করতে হবে। বিশেষভাবে পরিকল্পনা করে এটিকে আরো দৃশ্যমান করতে হবে।

সমবায় অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের উদ্দ্যেশ্যে তিনি বলেন, পরস্পরের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ, ভালবাসা আর আন্তরিকতা থাকলে অনেক অসম্ভব কাজও অনেক সহজে সমাধান করা যায়। মূল কাজ হচ্ছে সদিচ্ছা । সমন্নিতভাবে একই লক্ষ্য, উদ্দেশ্যে নিয়ে কাজ করলে সফলতা আসবেই। কাজের গতি শ্লথ হলে সেবা প্রত্যাশীদের আগ্রহ কমে যায়। জনবান্ধব সেবা নিশ্চিত করতে হলে আমাদের সবাইকে একাগ্রচিত্তে নিষ্ঠার সাথে দায়িত্বপালন করতে হবে। ৪৯তম জাতীয় সমবায় দিবস অত্যন্ত সুন্দর ও সুশৃঙ্খলভাবে উদযাপনের জন্য সমবায় অধিদপ্তরের সকল স্তরের কর্মকর্তা কর্মচারীসহ সকল সমবায়ীদের প্রতি অশেষ ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।
পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের সচিব মো: রেজাউল আহসান বলেন- সকল কর্মকর্তা কর্মচারীদের স্বতস্ফূর্ত অংশগ্রহনের ফলেই সমবায় দিবস অত্যন্ত সফলভাবে সমাপ্ত হয়েছে। সমবায় সমিতিগুলো কি কাজ করছে তার একটি সচিত্র প্রতিবেদন ‘‘সমবায়ের সাফল্যগাঁথা’’। আমাদের সমবায়ের অনেক সাফল্যের ইতিহাস আছে । যা সবার জানা উচিত। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নিজ হাতে ‘‘সমবায়ের সাফল্যগাঁথা’’ বইটির মোড়ক উন্মোচন করেছেন যা সমবায়ের জন্য অত্যন্ত গর্বের বিষয়। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সমবায় পণ্যের বিকাশে উদ্যোগ গ্রহনের কথা বলেছেন। তাই হাট বাজার, উপজেলা ও জেলা পর্যায়ে সমবায় বাজার স্থাপনে আমাদের দ্রুত পদক্ষপে নিতে হবে।

সভাপতির বক্তব্যে সমবায় অধিদপ্তরের নিবন্ধক ও মহাপরিচালক মো. আমিনুল ইসলাম বলেন, সমবায় সমিতি হচ্ছে সম্পূর্ণ অরাজনৈতিক ও গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠান। একটি সমবায় সমিতি সফল হলে এর সদস্যদের পরিবারগুলো অর্থনৈতিকভাবে সফল হয় যা একটি এলাকার সামগ্রিক চিত্রকে বদলে দেয়। জনবান্ধব সেবা প্রদানে আমরা সর্বদা কাজ করে যাচ্ছি।
অনুষ্ঠানে পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগ এবং সমবায় অধিদপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন...

রিজেন্টের পর করোনা পরীক্ষায় জালিয়াতি সাহাবউদ্দিন মেডিকেলে

অনলাইন ডেস্ক. পরিবর্তন সংবাদ

দেশবাসীকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার অনুরোধ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর

অনলাইন ডেস্ক. পরিবর্তন সংবাদ

করোনামুক্ত হয়ে বাসায় ফিরলেন বাণিজ্যমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক. পরিবর্তন সংবাদ